এভাবে আর কত ?

শুরুটা ভাল করার পরেও মিডেল অর্ডারদের উদাসীনতা আর আই ছিঃ ছিঃ এর চোরামি দেখে খেলা দেখার উপর থেকে মন উঠে গেল!
খেলার শুরুর দিক থেকেই ধোনিকে দেখা গেছে বার বার আম্পায়ারের সাথে কথা বলতে। কি নিয়ে কথা বলেছে সেটার কারন বুঝা না গেলেও তাদের বার বার কথা বলতে দেখা গেছে।
এমনও হতে পারে পাওয়ার প্লেতে সার্কেলের বাইরে অতিরিক্ত প্লেয়ার থাকত যা আম্পায়ার সতর্ক করেছে কিন্তু নো বল দেয় নাই।
ইমরুলের এলবি আউট টাতেও স্নিকোতে সামান্য নয়েজ ধরা পড়ে কিন্তু থার্ড আম্পায়ার সেটাকে আমলেই নিলো না। অন্যান্য সময় এই সামান্যর জন্যই অনেকে আউট থেকে বেচে যেতে দেখা যায়।

লিটন দাসের আউট সেটা তো এককথায় বলা চলে চুরি, আম্পায়ার সুযোগের সন্ধানে ছিল কখন দাদাদের খুশি করবে। আর পেয়ে গেল মকা, সেটাকেই কাছে লাগিয়ে দিল। সবসময় দেখেছি বেনিফিট অব ডাউবট ব্যাটসম্যানদের পক্ষে যায় আর আজকে দেখলাম ইন্ডিয়ার পক্ষে যায়। লিটন দাস থাকলে ২৫০+ রান অসম্ভব ছিল না, এই মাঠে ২৫০+ রান অনেক কিছু।
বোলিংয়েও হয়তো এমন আরো অনেক কিছুই দেখতে হবে।

বাংলাদেশ টিম তোমরা নিজেরাও যেমন সেধে বাশ নেও আর ইন্ডিয়া + আই ছিঃ ছিঃ সুযোগ পেলেই বাশ ঢুকিয়ে দেয়।
ফাইনালে কাপ জিতার স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে যত দিনে নিজেরা ভাল না হবা আর আই ছিঃ ছিঃ ইন্ডিয়ার প্রভাব মুক্ত না হবে।

blogartwork
10
10.946 GOLOS
0
В избранное
ASYA-SIKDER
На Golos с 2018 M08
10
0

Зарегистрируйтесь, чтобы проголосовать за пост или написать комментарий

Авторы получают вознаграждение, когда пользователи голосуют за их посты. Голосующие читатели также получают вознаграждение за свои голоса.

Зарегистрироваться
Комментарии (1)
Сортировать по:
Сначала старые